1. admin@banglatv21.com : admin :
  2. info@banglatv21.com : bangla tv : bangla tv
সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৬:০৫ অপরাহ্ন

নদী দখলদারেরা রাজনীতির কীট

  • Update Time : বুধবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৩ Time View

নদ-নদী দখল ও দূষণ রোধে সরকারের প্রতিষ্ঠান ও দপ্তরগুলো আইনের প্রয়োগ করে না বলেই দেশের নদ-নদী বিপন্ন হতে চলেছে। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের একার পক্ষে এ অবস্থার পরিবর্তন সম্ভব নয়। এ জন্য দরকার দৃঢ় রাজনৈতিক সদিচ্ছা।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে নয়াপল্টনে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় এমন মত দিয়েছেন বিশিষ্টজনেরা। তবে
কমিশন বলছে, নদ-নদী রক্ষায় সরকারের রাজনৈতিক সদিচ্ছা আছে। কিন্তু দেশের রাজনৈতিক ব্যবস্থার মধ্যে কিছু কীট আছে, যারা নদ-নদী দখল ও দূষণ করছে। এই দখল ও দূষণকারীদের শুধু জরিমানা না করে অন্তত পাঁচ দিনের জন্য হলেও কারাগারে পাঠাতে হবে।

কমিশনের ২০১৮ সালের বার্ষিক প্রতিবেদনে নদী রক্ষায় দেওয়া সুপারিশগুলো বিশিষ্টজনদের জানাতে এবং সুপারিশগুলো প্রয়োগ ও বাস্তবায়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় তাঁদের পরামর্শ নিতেই সভাটির আয়োজন করা হয়।

এক রিটের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ১ জুলাই হাইকোর্ট নদী দখল ও দূষণকে ফৌজদারি অপরাধ গণ্য করে পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করেন। এতে দেশের সব নদ–নদীকে জীবন্ত সত্তা এবং এগুলো রক্ষায় জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনকে আইনগত অভিভাবক ঘোষণা করা হয়। এরপর গত সেপ্টেম্বরে সারা দেশে নদ-নদী দখলদারদের তালিকা প্রকাশ করে কমিশন। তালিকায় ৪৯ হাজার ১৬২ জনের নাম আছে। এসব দখলদারের বেশির ভাগকেই এখনো উচ্ছেদ করা হয়নি। কমিশন বলছে, এক বছরের ‘ক্রাশ প্রোগ্রামের’ মাধ্যমে সব দখলদার উচ্ছেদ করতে জেলা প্রশাসনকে বলা হয়েছে। কিন্তু কারিগরি ও আর্থিক সমস্যার কারণে তা হয়নি। এ জন্য অর্থ মন্ত্রণালয় ও নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের কাছে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ চেয়েছে কমিশন। কমিশন টাকা পেলে জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে উচ্ছেদ করে নদী দখলমুক্ত করতে পারবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

Categories

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত