1. admin@banglatv21.com : admin :
বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন

ঢাবির ভর্তি পরীক্ষায়: চুয়াডাঙ্গা জেলা থেকে আগত সকল শিক্ষার্থীকে সেবা দিয়ে যাচ্ছেন কার্পাসডাঙ্গার ছেলে: অভি

প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ মে, ২০২৩
  • ৩১৭ বার পঠিত

 

স্টাফ রিপোর্টার ইমরান নাজির:
চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা-আরামডাঙ্গা গ্রামের ছেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামের ভর্তি পরীক্ষা চলার সময় বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া আরাফাত হোসাইন অভির স্বেচ্ছাসেবায় মুগ্ধ হচ্ছেন সবাই। বিশেষ করে, ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছ থেকে সংগঠনটি বেশ প্রশংসা কুড়াচ্ছে।

আজ শনিবার (১৩ মে) ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের পরীক্ষা চলার সময় ক্যাম্পাসে আগত বিভিন্ন শ্রেণির লোকজনের সঙ্গে কথা বলে শুনা যায় ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন অব চুয়াডাঙ্গা ( ডুসাক) এর হেল্প ডেস্কের কথা

ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস এসোসিয়েশন অব চুয়াডাঙ্গা ( ডুসাক) এর হেল্প ডেস্কের সেবামূলক কার্যক্রমের ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলার কুড়ুলগাছি ইউনিয়নের ঠাকুরপুর গ্রাম থেকে আব্দুল হাকিম এসেছেন তার বড় মেয়ে কে নিয়ে। তার তার মেয়ের পরীক্ষার কেন্দ্র পড়েছে এমবিএ ভবনে। তিনি ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনঅব চুয়াডাঙ্গা ( ডুসাক) এর হেল্প ডেস্কের সেবার বিষয়ে বাংলা টিভি ২১ অনলাইনকে বলেন, “ক্যাম্পাসে আসার পর আমার মেয়ের পানির পিপাসা লাগে। তখন হেল্পডেস্কে পানির কথা বললে সঙ্গে সঙ্গে একটি পানির বোতল দেয়। এরপর এমবিএ ভবনটা আমি চিনতে পারছিলাম না, তখন তারাই এটা দেখিয়ে দেয়। তারপর আমার মেয়েকে কেন্দ্রে ঢুকিয়ে দিয়ে এসে এই অভিভাবক ছাউনিতে (শ্যাডোর পেছনে) এসে বসেছি।”

ছাত্রলীগসহ আরও বিভিন্ন ছাত্র, সামাজিক, স্বেচ্ছাসেবী এবং জেলাউপজেলা সংগঠনসমূহ ঢাবি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে শিক্ষার্থী সহায়তা ও তথ্য কেন্দ্র বসিয়েছে। এসব সহায়তা কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সহায়তা করার পাশাপাশি পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে নেওয়ার অনুপযোগী জিনিসপত্র (ব্যাগ, ঘড়ি, মোবাইল ইত্যাদি) রাখার ব্যবস্থাও করা হয়।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত বলেন, “বাংলাদেশ ছাত্রলীগ যেখানে আছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা সেখানে নিরাপদ থাকবে। ক্যাম্পাসগুলোতে শিক্ষার্থীরা যাতে সুষ্ঠু ও সুন্দর শিক্ষার পরিবেশ ফিরে পায় সেই উদ্দেশ্য নিয়ে ছাত্রলীগ কাজ করছে এবং ভবিষ্যতেও করে যাবে। আর, ক্যাম্পাসে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদের জন্য আমাদের যে স্বেচ্ছাসেবা চলমান রয়েছে তা ধারাবাহিকভাবে অব্যাহত থাকবে।”

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর
All rights reserved © 2021-2023
Design By Raytahost